Home / খবর / সরকারি দপ্তরে মশক নিধন অভিযানের নির্দেশ

সরকারি দপ্তরে মশক নিধন অভিযানের নির্দেশ

রাজউকসহ সকল সরকারি দপ্তর ও সংস্থায় মশক নিধন অভিযানের নির্দেশ দিয়েছেন স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার রাজউকের আওতাধীন সরকারি, ডেভলোপার, ব্যক্তি পর্যায়ে নির্মিত, নির্মাণাধীন ভবনে এডিস মশার বংশ বিস্তার ও ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব রোধকল্পে নির্মিত, নির্মাণাধীন ভবনে নিয়মিত তদারকি সংক্রান্ত অনলাইনে আয়োজিত এক সভায় এ নির্দেশ দেন তিনি।

তিনি বলেন, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন রাজউক, স্থাপত্য অধিদপ্তরসহ অন্যান্য দপ্তর ও সংস্থার নির্মিত এবং নির্মাণাধীন সরকারি এবং আবাসিক ভবনে স্ব স্ব উদ্যোগে মশক নিধন অভিযান পরিচালনা করতে হবে। একই সঙে দুই সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে চলমান মশক নিধন কার্যক্রমে রাজউকসহ সকল দপ্তর ও সংস্থাকে সহযোগিতার মাধ্যমে সমন্বয় করে কাজ করারও নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

রাজউক, স্থাপত্য অধিদপ্তরের অনেকগুলো নির্মাণাধীন ও নির্মিত অবকাঠামো রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, অনেক সরকারি এবং বেসরকারি আবাসিক এলাকা রয়েছে। যেগুলোতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যাচ্ছে। তাই সকল সরকারি ভবন ও আবাসিক এলাকা, নির্মাণাধীন ভবন এবং কাওরান বাজার ও নিউমার্কেটসহ সকল বাজারে মশক নিধনে চিরুনি অভিযান পরিচালনা করতে হবে বলে সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশ দেন মন্ত্রী।

তিনি এডিস মশা নিধন কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য রাজউকের উপযুক্ত কর্মকর্তাদের মাধ্যমে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার নির্দেশনা প্রদান করে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত সচিব ও রাজউক চেয়ারম্যানকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলেন। এছাড়া মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সকল প্রতিষ্ঠানকে আলাদা আলাদা নির্দেশনাসহ সবধরনের ভবন পরিদর্শন এবং রির্পোট অনুযায়ী পদক্ষেপ নিতে বলেন তাজুল ইসলাম।

মশা নিধনে যেসকল ঔষুধ ব্যবহার করা হচ্ছে সেগুলোর গুণগতমান পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেই ছিটানো হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, ঔষধের কোন কোন ঘাটতি নেই। পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। শুধু অভিযান পরিচালনা করে মশার প্রাদুর্ভাব বন্ধ করা যাবে না। এজন্য দরকার মানুষের সচেতনতা।

সভায় স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, গৃহায়ন ও গণপূর্ত শহীদ উল্লাহ খন্দকার, রাজউক চেয়ারম্যন এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী ,ড্যাপের প্রকল্প পরিচালক আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Check Also

সে জেলে যাবে যাক, টাকাটা যে নিয়ে গেল সেটা কোথায়?

‘আমার বাড়ি কেন অরক্ষিত? আমার বাড়ি মানে বাংলাদেশ। দেশের মানুষ দরজা জানালা বন্ধ করে শান্তিতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *